1. admin@protidinbd24.com : admin :
শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ০৫:১১ অপরাহ্ন
আমাদের ভিষন;
*সত্য প্রকাশে আমরা দূর্বার*
প্রধান খবর
শিক্ষকরা নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের কোচিং বা প্রাইভেট পড়াতে পারবেন না; যেসব রুট ধরে পদ্মা সেতু হয়ে ইউরোপে যাবে ট্রেন পদ্মা সেতু: ৩৫ বছরে সরকারের দেওয়া অর্থ পরিশোধ করবে সেতু কর্তৃপক্ষ; পদ্মা সেতুর রেলিংয়ের নাট-বল্টু খুলে টিকটক ভিডিও তৈরি করা যুবক আটক সর্বনিম্ম ২ ঘন্টা থেকে ২০ ঘণ্টার দুর্ভোগ ৬ মিনিটে শেষ পদ্মা সেতুতে কোনো যানবহন দাড় করিয়ে ছবি তোলা যাবেনা; কুমিল্লা সিটি মেয়র নির্বাচনে হার-জিতের ইতিবৃত্ত; স্বপ্নের পদ্মা সেতু: সূচনা থেকে সর্বশেষ ইতিবৃত্ত তিনিই কি দূর্নীতির বরপুত্র? নাকি হাতির দন্ত! পদ্মা সেতুর টোল সংযোজন করে ভাড়া বাড়লো ১০টাকা; দক্ষিণ বঙ্গের ১৩টি রুটের বাসভাড়া নির্ধারণ; রাসুল (সঃ) কে নিয়ে কটূক্তি করায় বিজেপি নেতা গ্রেপ্তার ২৫তারিখেই উদ্বোধন হবে স্বপ্নের পদ্মা সেতু; পদ্মা সেতু নির্মাণ ব্যয় নিয়ে স্বার্থান্বেষী গোষ্ঠীর মিথ্যা প্রচারণাগুলোকে নিন্দা জানাই॥ Abc চট্টগ্রাম হাটহাজরীতে সাতবাচ্চার জম্ম দিয়েছেন এক মা; বার কাউন্সিল নির্বাচন: আ.লীগের সাদা প্যানেল ১০ ও বিএনপির নীল প্যানেল ৪ পদে জয়; দূর্নীতি মামলায় নর্থ সাউথের ৪ ট্রাস্টি সদস্য কারগারে; ভূমি সংস্কারে নতুন আইন, ব্যক্তি পর্যায়ে ৬০ বিঘা মালিকানার সুযোগ, বেশী হলে বাজেয়াপ্ত। পিকে (প্রশান্ত কুমার) হালদার ইস্যুতে চার সংস্থায় তথ্য চেয়ে চিঠি দিয়েছে দুদক। পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে চলছে বিশেষ প্রস্তুতি;

মনিপুর স্কুলে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীর মধ্যে সম্পর্কের বৈরিতার কারন শ্রেনী কক্ষে বেতনের জন্য চাপ দেয়া;

  • শনিবার, ৩০ জানুয়ারী, ২০২১
  • ১৯৭ বার পড়া হয়েছে

 

অনলাইন ডেস্ক ;

শিক্ষক ও শিক্ষার্থীর মধ্যে পিতা ও সন্তানের সম্পর্ক।সে সম্পর্ক হারানোর অন্যতম কারন ক্লাসে বেতনের জন্য শিক্ষার্থীকে চাপ সৃষ্টি করা।এহেন আচরনে শিক্ষার্থীর মনোযোগ ব্যাহত হয়, শিক্ষকের প্রতি শিক্ষার্থীর অশ্রদ্ধা তৈরী হয়।অভিভাবকদের সাথে তৈরী হয় তিক্ততা।শিক্ষার পরিবেশ হয় ব্যাহত।মনিপুর স্কুলে এ আচরন একটি সাধারন ব্যাপার।

শিক্ষার্থীর কাছে বেতনের চাপ সৃষ্টি করলে শিক্ষার্থী প্রথমে ক্লাসে সহপাঠিদের সামনে নিজেকে অপমান বোধ করে, কান্নাকাটি করে, মন খারাপ করে। পরে বাসায় বাবা মাকে বিরক্ত করে, এহেন অবস্থা শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের এক প্রকার মানষিক টর্চার। ফলে অভিভাবকরা কর্মস্থলে বেতন হোক বা না হোক ধার কর্য ঋন করে বেতন পরিশোধ করে সন্তানের মন ভাল রাখার জন্য। কিন্তু স্কুল কর্তৃপক্ষের এ আচরন খুবই অনৈতিক।এ অনাকাঙ্খিত আচরনের কারনে ক্ষতিগ্রস্থ হয় শিক্ষার ধারাবাহিক সুনাম রক্ষা করা।

বেতন আদায়ের জন্য হিসাব বিভাগ রয়েছে।তারা অভিভাবকদের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ রাখবেন, এটাই নিয়ম।

কিন্তু শিক্ষকদের বেতন বন্ধ করে শ্রেনী কক্ষে শিক্ষার্থীদের চাপ প্রয়োগ করার অপকৌশল নিঃসন্দেহে একটি দূর্নীতি চরিত্র।

এক অভিভাবকের প্রতিবেদন ;

প্রতিদিনবিডি২৪/

ভালো লাগলে এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই কেটাগরির আরো খবর

Categories

© All rights reserved 2020 protidinbd24

কারিগরি সহায়তা WhatHappen