1. admin@protidinbd24.com : admin :
সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ১২:১২ অপরাহ্ন
আমাদের ভিষন;
*সত্য প্রকাশে আমরা দূর্বার*
প্রধান খবর
শিক্ষকরা নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের কোচিং বা প্রাইভেট পড়াতে পারবেন না; যেসব রুট ধরে পদ্মা সেতু হয়ে ইউরোপে যাবে ট্রেন পদ্মা সেতু: ৩৫ বছরে সরকারের দেওয়া অর্থ পরিশোধ করবে সেতু কর্তৃপক্ষ; পদ্মা সেতুর রেলিংয়ের নাট-বল্টু খুলে টিকটক ভিডিও তৈরি করা যুবক আটক সর্বনিম্ম ২ ঘন্টা থেকে ২০ ঘণ্টার দুর্ভোগ ৬ মিনিটে শেষ পদ্মা সেতুতে কোনো যানবহন দাড় করিয়ে ছবি তোলা যাবেনা; কুমিল্লা সিটি মেয়র নির্বাচনে হার-জিতের ইতিবৃত্ত; স্বপ্নের পদ্মা সেতু: সূচনা থেকে সর্বশেষ ইতিবৃত্ত তিনিই কি দূর্নীতির বরপুত্র? নাকি হাতির দন্ত! পদ্মা সেতুর টোল সংযোজন করে ভাড়া বাড়লো ১০টাকা; দক্ষিণ বঙ্গের ১৩টি রুটের বাসভাড়া নির্ধারণ; রাসুল (সঃ) কে নিয়ে কটূক্তি করায় বিজেপি নেতা গ্রেপ্তার ২৫তারিখেই উদ্বোধন হবে স্বপ্নের পদ্মা সেতু; পদ্মা সেতু নির্মাণ ব্যয় নিয়ে স্বার্থান্বেষী গোষ্ঠীর মিথ্যা প্রচারণাগুলোকে নিন্দা জানাই॥ Abc চট্টগ্রাম হাটহাজরীতে সাতবাচ্চার জম্ম দিয়েছেন এক মা; বার কাউন্সিল নির্বাচন: আ.লীগের সাদা প্যানেল ১০ ও বিএনপির নীল প্যানেল ৪ পদে জয়; দূর্নীতি মামলায় নর্থ সাউথের ৪ ট্রাস্টি সদস্য কারগারে; ভূমি সংস্কারে নতুন আইন, ব্যক্তি পর্যায়ে ৬০ বিঘা মালিকানার সুযোগ, বেশী হলে বাজেয়াপ্ত। পিকে (প্রশান্ত কুমার) হালদার ইস্যুতে চার সংস্থায় তথ্য চেয়ে চিঠি দিয়েছে দুদক। পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে চলছে বিশেষ প্রস্তুতি;

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে চলছে বিশেষ প্রস্তুতি;

  • বুধবার, ১৮ মে, ২০২২
  • ৮২ বার পড়া হয়েছে

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে চলছে বিশেষ প্রস্তুতি

আগামী জুনেই স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধনের যাবতীয় প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছেন কর্তৃপক্ষ। এখন চলছে সেতুর নামফলক, ম্যুরালসহ রাস্তার মার্কিং করার কাজ।

মূল সেতুর কাজ ইতোমধ্যে ৯৮ শতাংশ সম্পন্ন হয়েছে। মাওয়া প্রান্ত থেকে সংযোগ সেতুর বাকি অংশের কার্পেটিংয়ের প্রস্তুতিও চলছে জোরেশোরে।

মূল সেতুর ওপরে পিচ ঢালাইয়ের কাজ শেষ হয়েছে। সেতুর ওপর দিয়ে যান চলাচলের জন্য এখন সেতু পুরোপুরি প্রস্তুত।’

সেতুতে বাতি বসানোর কাজ শেষ হয়েছে গত মাসেই। এখন চলছে ল্যাম্পপোস্টে বিদ্যুৎসংযোগ দেওয়ার কাজ। এই কাজও এই সপ্তাহে শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। শুধু বাকি আছে লাইনে মিটার বসানো আর সংযোগ দেওয়া। এই মাসের শেষের দিকেই সেতু আলোকিত হবে। যদিও এখন কোথাও কোথাও টেস্ট চলছে।

সেতুতে এখন বাকি আছে সাইন, সংকেত ও মার্কিং বসানোর কাজ। এটা ২০ মে থেকে শুরু হবে। আর সেতুর সীমানা দেয়ালের ওপর স্টিলের রেলিং বসানোর কাজও বাকি আছে। এটাও ২০ মে থেকে শুরু হবে।

পদ্মা সেতু প্রকল্পের টাকায় সেতুতে রেল চলাচলের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। যদিও এখনও রেললাইন বসানো শুরু হয়নি। পদ্মা সেতু দিয়ে যানবাহন চালু হওয়ার পর সেতু কর্তৃপক্ষ রেল লাইন বসানোর জন্য রেল কর্তৃপক্ষকে সেতুটি বুঝিয়ে দেবে। আগামী জুলাইতে রেল কর্তৃপক্ষকে সেতু বুঝিয়ে দেওয়া হবে। আর সেতুর ওপর রেললাইন বসাতে মাস ৬ এর মতো সময় লাগবে বলে জানা গেছে।

সেতু বিভাগ থেকে পদ্মা সেতুতে যানবাহন চলাচলের জন্য টোল চূড়ান্ত করা হয়েছে। মোটরসাইকেল পারাপারে টোল দিতে হবে ১০০ টাকা (বর্তমানে ফেরিতে ৭০টাকা), কার ওজিপের টোল দিতে হবে ৭৫০ টাকা (ফেরিতে যা বর্তমানে ৫০০ টাকা), পিকআপ পারাপারে টোল দিতে হবে ১২০০ টাকা (বর্তমানে ফেরিতে ৮০০ টাকা), মাইক্রোবাস পারাপারে টোল দিতে হবে ১৩০০ টাকা (বর্তমানে ফেরিতে ৮৬০ টাকা), ছোট বাস পারাপারে টোল দিতে হবে ১৪০০ টাকা (বর্তমানে ফেরিতে ৯৫০ টাকা), মাঝারি বাস পার হতে টোল দিতে হবে ২০০০ টাকা (বর্তমানে ফেরিতে ১৩৫০ টাকা), বড় বাসের টোল দিতে হবে ২ হাজার ৪০০ টাকা (ফেরিতে যা এখন ১৫৮০ টাকা), ছোট ট্রাকের টোল দিতে হবে (৫টন পর্যন্ত) ১৬০০ টাকা (বর্তমানে ফেরিতে ১০৮০ টাকা), মাঝারি ট্রাকের টোল দিতে হবে ২১০০ টাকা (ফেরিতে বর্তমানে ১৪০০টাকা),মাঝারি ট্রাক (৮-১১ টন টোল দিতে হবে ২৮০০ টাকা (বর্তমানে ফেরিতে ১৮৫০ টাকা) আর ট্রাক ( ৩ এক্সেল পর্যন্ত) টোল দিতে হবে সাড়ে ৫ হাজার টাকা (বর্তমানে ফেরিতে ৩৯৪০ টাকা। সাধারন জনগন বলছেন টোল সামান্য বেশী হওয়া সময় সাশ্রয়ের চেয়ে মূল্যবান নয়।

পদ্মা সেতুর (মূল সেতু) দৈর্ঘ্য ৬.১৫ কিলোমিটার। দুই প্রান্তের উড়ালপথ (ভায়াডাক্ট) ৩.৬৮ কিলোমিটার। সব মিলিয়ে সেতুর দৈর্ঘ্য ৯.৮৩ কিলোমিটার।

স্বপ্নের পদ্মা সেতু চালু হলে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চালের মানুষের যাতায়াত ব্যবস্থা নির্বিঘ্ন হবে। মাওয়া ফেরি ঘাট এবং দৌলদিয়া-পাটুরিয়া ফেরিঘাটে মানুষের দুভো‍র্গ কমবে।

২০১৪ সালের ডিসেম্বরে পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ শুরু হয়। ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর ৩৭ ও ৩৮ নম্বর খুঁটিতে প্রথম স্প্যান বসানোর মধ্য দিয়ে দৃশ্যমান হয় পদ্মা সেতু। এরপর পর একে একে ৪২টি পিলারে ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের ৪১টি স্প্যান বসিয়ে ৬.১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু পুরোপুরি দৃশ্যমান হয়েছে ২০২০ সালের ১০ ডিসেম্বর।

মূল সেতু নির্মাণের জন্য কাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি (এমবিইসি) ও নদী শাসনের কাজ করছে দেশটির আরেকটি প্রতিষ্ঠান সিনো হাইড্রো কর্পোরেশন। দু’টি সংযোগ সড়ক ও অবকাঠামো নির্মাণ করেছে বাংলাদেশের আবদুল মোমেন লিমিটেড। কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মিত হয়েছে সেতুটি।

প্রতিদিনবিডি২৪/একে আজাদ;

ভালো লাগলে এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই কেটাগরির আরো খবর

Categories

© All rights reserved 2020 protidinbd24

কারিগরি সহায়তা WhatHappen